দিনে ঘুমে বিষণ্নতা বাড়ছে

ডিজিটাল বানিএ: পেন স্টেট কলেজ অব মেডিসিনের সহকারী অধ্যাপক জুলিও ফারনান্দেজ মেনডোজা বলেন, ওজনাধিক্য এবং ওজন বাড়া দিনের বেলার ঘুম এবং ঘুমভাবের জন্য অনেকাংশে দায়ী। কেবল কম ঘুমের জন্যই ওজন বাড়ে না, নিয়মিত নিদ্রালুভাবের জন্যও ওজন বাড়ে।

জুলিও ফারনান্দেজ বলেন, এসব লোক রাতে ভালো করে ঘুমানোর পরও সারাদিন ক্লান্তবোধ করেন। তাই যদি আপনি ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে চান তবে অবশ্যই দিনের বেলার ঘুমভাব কাটাতে হবে। শরীরের ওজনের ওপর নির্ভর করে আপনার ঘুমানোর পরিমাণ নির্দিষ্ট করুন। প্রাথমিকভাবে বলা যায়, যাদের ওজন বেশি তারা সব সময়ই ক্লান্ত বোধ করেন। সহজভাবে বলা যায়, চর্বিকোষ, বিশেষ করে পেটের দিকে, এক ধরনের জিনিস তৈরি করে যাকে বলা হয় কাইটোকিনস। এটি ঘুমভাব তৈরি করে এবং ঘুমকে প্রভাবিত করে। গবেষকরা দিনের বেলায় যারা বেশি ঘুমান এমন এক হাজার ৩৯৫ জনের ওপর প্রায় সাড়ে সাত বছর ধরে গবেষণা করে এই ফল পেয়েছেন।

এদিকে স্বাস্থ্যবিষয়ক জার্নাল ওয়েব এমডি জানিয়েছে, যারা দিনের বেলা ঘুমান বা নিদ্রালু থাকেন, তারা অন্যদের তুলনায় তিন ভাগ বেশি বিষণ্নতা রোগে আক্রান্ত হন এবং ওজন যাদের বেশি এ সমস্যার কারণে তারা স্লিপ এপিনিয়ার সমস্যায় ভোগেন।

গবেষকরা দেখেছেন, এসব মানুষ হয়তো রাতে ঘুমাতে পারেন না বা মাঝরাতে কোনো কারণে জেগে যান। যার ফলে দিনের বেলায় নিদ্রাভাব হয়। যারা সারাদিন এমন ক্লান্ত বোধ করেন তাদের কর্মক্ষমতা কমে যায়, কাজে অমনোযোগী হয়ে পড়েন এবং আরো বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হয়। এর ফলে একপর্যায়ে বিষণ্নতা আরো বেড়ে যায়। তাই গবেষকদের মতে, ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবং বিষণ্নতাকে দূরে রাখতে সঠিক ঘুমের অভ্যাস তৈরি করা খুবই জরুরি।

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *