ফণীর তাণ্ডবে প্রবল দুর্যোগের সম্ভাবনা,পূর্বাভাস আবহাওয়া দফতরের

নিউজ ডিজিটাল : ফণীর সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়ার আশঙ্কা রাজ্য ওড়িশায়। তবে ঘূর্ণিঝড় ফণীর তাণ্ডব থেকে রেহাই পাবে না পশ্চিমবঙ্গও। সূত্রের খবর শুক্রবার দুপুরে ওড়িশার গোপালপুর উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়।এরই জেরে আতঙ্কে সৈকতশহর ছাড়ছেন পর্যটকরা।

জানাগিয়েছিযে, এ রাজ্যের উপকূল থেকে ৫৪০ কিমি দূরে অবস্থান করছে ফণী। আবহবিদদের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, শুক্রবার দুপুরে ওড়িশার গোপালপুর উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়। এই ঝড়ের অভিমুখ আবার পশ্চিমবঙ্গের উপকূলের দিকেই। আবহবিদরা জানিয়েছেন, ওড়িশা উপকূলে যখন আছড়ে পড়বে ফণী, তখন ঘূর্ণিঝড়ের গতিবেগ থাকবে ঘণ্টায় ২০৫ কিমি।

ওড়িশার গোপালপুর থেকে দিঘার দূরত্ব খুব বেশি নয়। দিঘার সমুদ্রে পর্যটকদের নামায় যেমন নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন, তেমনি সৈকতগুলি দড়ি দিয়ে ঘিরে ফেলা হয়েছে। পর্যটকদের সতর্ক করতে সমুদ্রতটে চলছে মাইকিং। জানা গিয়েছে, বুধবার রাতে দিঘার সৈকতে গার্ডওয়ালের কাছে বেশ কয়েকটি বড় ঢেউ আছড়ে পড়ে। জলের ধাক্কায় সমুদ্র পড়ে গিয়েছিলেন এক মহিলা। তড়িঘড়ি তাঁকে উদ্ধার করে নুলিয়ারা।দিঘার সমুদ্রে পর্যটকদের নামায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন। সমুদ্রতটে চলছে মাইকিং।
সূত্রের খবর সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে পুরসভার পাম্পিং স্টেশনগুলিকেও। এদিকে ফণীর কারণে স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্মীদের ছুটি বাতিল করেছে সরকার।ছবি-প্রতীকী

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail